৫ই ভাদ্র, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, শুক্রবার

Generic selectors
Exact matches only
Search in title
Search in content
Post Type Selectors
Filter by Categories
Uncategorized
ইসলামী জীবন
ঔষধ ও চিকিৎসা
খাদ্য ও পুষ্টি
জানুন
নারীর স্বাস্থ্য
পুরুষের স্বাস্থ্য
ভিডিও
ভেসজ
যৌন স্বাস্থ্য
রান্না বান্না
লাইফ স্টাইল
শিশুর স্বাস্থ্য
সাতকাহন
স্বাস্থ্য ও সৌন্দর্য
স্বাস্থ্য খবর

দাঁতের প্লাক প্রতিরোধের উপায় !!!

মাড়ির রোগের অন্যতম কারণ হলো ডেন্টাল প্লাক। ডেন্টাল প্লাক হলো ব্যাকটেরিয়া কিংবা অন্যান্য জীবাণু দ্বারা তৈরি একধরনের আঠালো পদার্থ। এটি দাঁতের চারপাশে লেগে থাকে। ব্যাকটেরিয়া ছাড়াও এতে অন্যান্য অণুজীব, প্রোটিন, গ্লাইকোপ্রোটিন, লিপিডম্যাটেরিয়ালস, ক্যালসিয়াম, ফসফরাস, সামান্য সোডিয়াম, পটাশিয়াম ও ক্লোরাইডের উপস্থিতি পাওয়া যায়।

এর কারণে মাড়িতে প্রদাহজনিত রোগ যেমন জিনজিভাইটিস, পেরিওডোনটাইটিস রোগ হয়। দাঁতের প্লাক প্রতিরোধে কিছু উপায়ের কথা বাতলে দিয়েছে টপটেন হোম রেমিডিস।

* বেকিং সোডা
> দুই টেবিল চামচ বেকিং সোডা নিন। এর মধ্যে এক টেবিল চামচ লবণ নিন। টুথব্রাশের মধ্যে মিশ্রণটিকে লাগান এবং ভালোভাবে দাঁত ব্রাশ করুন। এরপর উষ্ণ পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন।

এই বিষয়গুলোর উপর ভিডিও বা স্বাস্থ্য বিষয়ক ভিডিও দেখতে চাইলে সাবস্ক্রাইব করে রাখুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেলটি ঠিকানা: – YouTube.com/HealthDoctorBD

> টুথব্রাশের মধ্যে সামান্য পরিমাণ বেকিং সোডা নিন। এবার দাঁত মাজুন। পদ্ধতিগুলোর যেকোনো একটি সপ্তাহে এক থেকে দুবার ব্যবহার করুন। তবে খুব বেশি বেকিং সোডা ব্যবহার করবেন না। এতে দাঁতের এনামেল ক্ষয় হয়ে যেতে পারে।

* অ্যালোভেরা

> অ্যালোভেরাকে মাঝখান থেকে কেটে এর ভেতরের শাঁসটি বের করুন।

> এই শাঁসকে দাঁত ও মাড়িতে সরাসরি লাগান। ১০ মিনিট রাখুন। এরপর ঠান্ডা পানিতে ধুয়ে ফেলুন। দিনে দুবার এটি ব্যবহার করতে পারেন।

এ ছাড়া ভালো টুথব্রাশ দিয়ে দিনে দুবার দাঁত ব্রাশ করুন। দাঁত ব্রাশের সময় জিহ্বাতেও ব্রাশ করুন। কেননা এখানে ব্যাকটেরিয়া জমে। এই ব্যাকটেরিয়া প্লাক তৈরি করতে পারে। এ ছাড়া প্রতিদিন দাঁত ভালোভাবে পরিষ্কারের জন্য ফ্লস ব্যবহার করুন।

Comments

comments