২রা ভাদ্র, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, মঙ্গলবার

Generic selectors
Exact matches only
Search in title
Search in content
Post Type Selectors
Filter by Categories
Uncategorized
ইসলামী জীবন
ঔষধ ও চিকিৎসা
খাদ্য ও পুষ্টি
জানুন
নারীর স্বাস্থ্য
পুরুষের স্বাস্থ্য
ভিডিও
ভেসজ
যৌন স্বাস্থ্য
রান্না বান্না
লাইফ স্টাইল
শিশুর স্বাস্থ্য
সাতকাহন
স্বাস্থ্য ও সৌন্দর্য
স্বাস্থ্য খবর

ওষুধ হিসেবেও হলুদের গুণাগুণ কম নয় !!!

রান্নার কাজের নিত্য ব্যবহার্য মশলা হলুদ। রান্নার পাশাপাশি ওষুধ হিসেবেও হলুদের গুণাগুণ কম নয়। গ্যাস-অম্বল প্রতিরোধ, মস্তিষ্কের ক্ষমতা বৃদ্ধি, ক্যান্সার প্রতিরোধ, শরীরের ব্যথা নিয়ন্ত্রণ, হৃদপিণ্ড সুস্থ রাখাসহ আমাদের শরীরের বিভিন্ন উপকারে লাগে মসলাজাতীয় এই পণ্যটি। তারুণ্য ধরে রাখতেও এই পণ্য ব্যবহার করা যায়।

চর্মরোগ প্রতিরোধেও ভূমিকা রাখে হলুদ। অ্যান্টি-অক্সিডেন্টের পাশাপাশি শরীরের প্রদাহরোধক এবং জীবাণুরোধক ক্ষমতা রয়েছে এই পণ্যে। যা ফলিকিউলিটিস নামক চর্মরোগ নিরসনে সাহায্য করে।

* ফলিকিউলিটিস রোগের নিরাময়ে প্রয়োজনীয় উপকরণ
হলুদ গুঁড়া এবং গরম পানি বা দুধ।

এই বিষয়গুলোর উপর ভিডিও বা স্বাস্থ্য বিষয়ক ভিডিও দেখতে চাইলে সাবস্ক্রাইব করে রাখুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেলটি ঠিকানা: – YouTube.com/HealthDoctorBD

* ফলিকিউলিটিস রোগের নিরাময়ে হলুদের ব্যবহার বিধি
এক কাপ হালকা গরম পানির সঙ্গে এক চা চামচ হলুদ গুঁড়া মিশিয়ে তা পান করতে হবে। গরম পানির পরিবর্তে গরম দুধ দিয়েও এই মিশ্রণ তৈরি করা যায়। ২-৩ বার করে কমপক্ষে এক সপ্তাহ এই মিশ্রণ পান করলে ফলিকিউলিটিস রোগের নিরাময়ে ভালো ফল পাওয়া যায়।

পানি বা দুধের সঙ্গে হলুদের মিশ্রণ পান করতে না পারলেও আক্রান্ত স্থানে এটি ব্যবহার করলেও ফলিকিউলিটিস রোগ থেকে মুক্তি পাওয়া যায়। আক্রান্ত স্থানে লাগানোর ক্ষেত্রে পানি বা দুধের সঙ্গে হলুদ গুঁড়ার মিশ্রণটি অনেক ঘন হতে হবে। এরপর দিনে অন্তত একবারের জন্য এটি ব্যবহার করতে হবে। আক্রান্ত স্থানে মিশ্রণটি লাগিয়ে ১৫ থেকে ২০ মিনিট অপেক্ষা করতে হবে। এরপর লাগানো মিশ্রণটি শুকিয়ে গেলে তা ভালোভাবে ধুয়ে ফেলতে হবে।

ফলিকিউলিটিস রোগের জ্বালা থেকে সম্পূর্ণভাবে মুক্তি পেতে শতভাগ ভালো না হওয়া পর্যন্ত এই মিশ্রণের ব্যবহার করা উচিত। এই মিশ্রণটি এক থেকে দুই সপ্তাহ পর্যন্ত নিয়মিত ব্যবহার করেই ভালো ফল পাওয়া যায়।

Comments

comments