৩রা পৌষ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, সোমবার

Generic selectors
Exact matches only
Search in title
Search in content
Search in posts
Search in pages
Filter by Categories
Uncategorized
ইসলামী জীবন
ঔষধ ও চিকিৎসা
খাদ্য ও পুষ্টি
জানুন
নারীর স্বাস্থ্য
পুরুষের স্বাস্থ্য
ভিডিও
ভেসজ
যৌন স্বাস্থ্য
রান্না বান্না
লাইফ স্টাইল
শিশুর স্বাস্থ্য
সাতকাহন
স্বাস্থ্য ও সৌন্দর্য
স্বাস্থ্য খবর

মূত্রনালির ইনফেকশন রোধে ৪ খাবার

মানব শরীর যন্ত্রের মতো, শরীরের কোথাও কোনো সমস্যা হলে পুরা শরীর অচল হওয়ার উপক্রম। তাই শরীর ভালো রাখতে আমাদের চেষ্টার কোনো অন্ত নাই। তারপরেও কিছু অসাবধানতায় শরীরে বিভিন্ন ধরনের রোগ-ব্যাধি আক্রমণ করে। তেমনি একটি রোগ মূত্রনালির ইনফেকশন।

নারী পুরুষ উভয়েরই এই ধরনের সমস্যায় আক্রান্ত হতে পারেন। অনেকটা সময় প্রস্রাব চেপে রাখা, গর্ভধারণ, ডায়বেটিস, ও মনোপজের সময় এই সমস্যা বেশি হয়। তাই সর্তক থাকতে হবে নিজেকেই। তবে কিছু খাবার রয়েছে যা এই মূত্রনালির ইনফেকশন হতে মুক্তি দিতে পারে। আজ দেয়া হলো তেমনই কিছু খাবারের নাম।

আমলকীঃ
আমলকীতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন ‘সি’ যা মূত্রনালির ইনফেকশন প্রতিরোধ করার ক্ষমতা রাখে। ১ কাপ পানিতে ১ চা চামচ হলুদ গুঁড়ো ও ১ চা চামচ আমলকী গুঁড়ো ফুটিয়ে নিন। মিশ্রণটি ফুটে অর্ধেক হয়ে এলে তা পান করুন চায়ের মতো। দিনে ৩ বার করে ৩-৫ দিন পান করুন এই পানীয়টি। মূত্রনালির ইনফেকশন দূর হবে সহজেই।

এই বিষয়গুলোর উপর ভিডিও বা স্বাস্থ্য বিষয়ক ভিডিও দেখতে চাইলে সাবস্ক্রাইব করে রাখুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেলটি ঠিকানা: – YouTube.com/HealthDoctorBD

বেকিং সোডাঃ
১ গ্লাস পানিতে ১ চা চামচ বেকিং সোডা মিশিয়ে দিনে ২ বার পান করার অভ্যাস অ্যাসিড উৎপাদন নিয়ন্ত্রণে রাখে এবং এতে করে প্রস্রাবের অ্যাসিডিটি কমায়। এতে করে ব্যথা কম হয় এবং ইনফেকশন দূর হয়।

আনারসঃ
যদি আপনার নিয়মিত আনারস খাওয়ার অভ্যাস থাকে তাহলে তা আপনাকে মূত্রনালির ইনফেকশন থেকে মুক্ত রাখতে সহায়তা করে। কারণ আনারসে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ‘ব্রোমেলেইন’ যার অ্যান্টি ইনফ্লেমেটরি উপাদান প্রদাহ বন্ধ করতে সহায়তা করে।

আপেল সিডার ভিনেগারঃ
আপেল সিডার ভিনেগার মূত্রনালির ইনফেকশন নিরাময়ে অনেক বেশি কার্যকরী একটি উপাদান। কারণ এতে রয়েছে পটাশিয়াম, এনজাইম এবং আরও বেশ কিছু এসেনশিয়াল মিনারেল যা মূত্রনালির ইনফেকশন দূর করতে সহায়ক। ১ গ্লাস পানিতে ২ টেবিল চামচ আপেল সিডার ভিনেগার মিশিয়ে দিনে ২ বার করে পান করেন কয়েকদিন। এ সমস্যা থেকে মুক্তি পাবেন।

Comments

comments